রাস্তাঘাটে চলাচলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন

আর কত সময় ধরে আমাদের মতো সাধারণ জনগণকে আতঙ্ক নিয়ে রাস্তাঘাটে বের হতে হবে। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আর কত দিন আমাদের এ পথচলা। হরতাল, অবরোধ, জ্বালাও-পোড়াও-এসবের কারণে আমাদের দৈনন্দিন যাতায়াত অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। রাজনীতির নামে চলছে দাঙ্গা-হাঙ্গামা, হামলা ও বোমাবাজি। এসব রাজনৈতিক সমস্যার ভুক্তভোগী হচ্ছে শিশু থেকে শুরু করে সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ। সিনজিচালিত অটোরিকশা, প্রাইভেট কার ও চলন্ত বাসে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। রিকশা, ভ্যান চলাচলে বাধা দেওয়া হচ্ছে। এ কেমন ধরনের গণতন্ত্র? একটি স্বাধীন গণতান্ত্রিক দেশে এসব চলতে পারে না। কেন সাধারণ মানুষকে অনিশ্চয়তার মধ্যে ঘর থেকে বের হতে হবে? সাম্প্রতিক সময়ে যে ধ্বংসযজ্ঞ চলছে তা থেকে বাদ পড়ছে না দোকানপাট, অফিস-আদালত, হাসপাতাল কিছুই। এতে সাধারণ মানুষকে পড়তে হচ্ছে বিভিন্ন বিপদের সম্মুখে। অফিস-আদালত, স্কুল-কলেজমুখী মানুষ রাস্তাঘাটে স্বাভাবিকভাবে চলাচল করতে পারছে না। সঠিক সময়ে উপস্থিত হতে পারে না নিজ নিজ কর্মস্থলে। শিক্ষার্থীরা লেখাপড়ায় পিছিয়ে পড়ছে।

নিজের শোবার ঘরেও মানুষ এখন নিরাপদ নয়। একটি দেশের সাধারণ নাগরিকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দায়িত্ব সরকারের। তাই সরকারের কাছে আমার দাবি, একটি স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসেবে স্বাধীনভাবে চলাচলের নিশ্চয়তা চাই।

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *