ঈদে পরিপাটি থাকবেন কীভাবে

ঈদ মানে খুশি, ঈদ মানে আনন্দ আর এ খুশির দিনে কে না চায় নিজেকে একটু অন্য রকম করে সাজাতে। কিন্তু কোরবানির ঈদ বলে কথা, সারা দিন ব্যস্ত থাকতে হয় গরু-খাসি আর গোশতের পেছনে। মেহমানদারির ধাক্কাও সামলাতে হবে আপনাকে। তাই বলে কি নিজেকে একটু পরিপাটি রাখবেন না? যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে। সময় বাঁচানোর জন্য ঈদের আগের দিনই আপনি নিজেকে একটু পরিপাটি করে রাখতে পারেন। তাতে ঈদের দিনের সময়ও বেঁচে যাবে, আপনার মানসিক অবস্থাও ভালো থাকবে; সেই সাথে সৌন্দর্যও। কোরবানির ঈদে সাধারণত আমরা সকাল থেকেই ব্যস্ত হয়ে পড়ি। তবে এই ব্যস্ততার মধ্যেও কিছুটা সময় বের করে নিতে হবে।

 

সকালে ঘুম থেকে উঠেই ত্বকের ধরন অনুযায়ী টোনার দিয়ে মুখের বাড়তি তৈল পরিষ্কার করে নিন। শসার রস, গোলাপজল ভালো প্রাকৃতিক টোনারের কাজ করে থাকে। তার পরও, বিশেষ করে কোরবানি ঈদে তৈল-চর্বির প্রভাব যেহেতু বেশি থাকে, সেহেতু আপনার চুলের দিকেও বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে। চুল নিয়ে আজকাল অনেকেরই ভাবনার শেষ নেই। ভালো স্বাস্থ্যোজ্জ্বল সুন্দর চুল সবারই কাম্য।

 

প্রোটিনের অভাবে চুলের রং প্রথমে নষ্ট হয়ে যায়। চুল লালচে বাদামি হতে থাকে। পরে চুল ঝরে যায় এবং চুলের আগা ফাটতে থাকে। কেরাটিনের অভাবে চুল ফেটে যায়, খাদ্যতালিকায় মাছ, গোশত, ডিম, দুধ, ডাল, দই, পনির ইত্যাদি থাকা জরুরি এবং কেরাটিন তৈরিতে সহায়তা করে। মাথার ত্বক সর্বদা পরিষ্কার রাখতে হবে। স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের জন্য প্রয়োজন সুষম খাদ্য সঠিক পরিমাণে আমিষ, শর্করা, চর্বি, ভিটামিন ও খনিজসমৃদ্ধ খাবার। খাদ্যতালিকায় আরও থাকতে হবে প্রচুর পরিমাণে শাকসবজি, ফল ও সালাদ; তাহলেই আপনার স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুল সুন্দর রাখা সম্ভব।

 

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.